জামায়াতপন্থিদের হত্যার হুমকি বিচলিত নন পীযূষ

0
3
Print Friendly, PDF & Email

জামায়াতপন্থি কয়েকটি ফেসবুক পেজে বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্ব ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন-এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক পীযূষ বন্দোপাধ্যায়কে হত্যার আহ্বান জানানো হলেও এতে বিচলিত নন তিনি। তিনি বলেছেন, উগ্র মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছন, এখন তাদের অনুসারীদের ভয়ে চুপসে যাওয়ার মানুষ তিনি নন।

এই মুক্তিযোদ্ধা বলেন,‘জামায়াত-শিবিরসহ কোনো মৌলবাদী গোষ্ঠীর হুমকিতে আমি বিচলিত নই। তাদের হুমকি-ধামকিতে আমি ভয় পাই না। আমি আমার আদর্শ নিয়ে কাজ করে যাবো আজীবন।’ তিনি বলেন, ‘আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা, কোনো অপশক্তিকে ভয় পাবার মানসিকতা নিয়ে মৌলবাদের সঙ্গে আপোস করার মানুষ আমি না।’

সম্প্রতি জামাত-শিবির সমর্থকগোষ্ঠী পরিচালিত বাশের কেল্লা ও বদর যুদ্ধের হাতিয়ারসহ কয়েকটি ফেইসবুকে পেজে পিযূষকে হত্যার আহ্বান জানানো হয়। পিযূষ রাজধানীতে একটি অনুষ্ঠানে মৌলবাদীদের নিয়ে একটি কবিতা আবৃত্তি করায় তাকে ইসলামের শত্রু আখ্যা দিয়ে হত্যা করতে এই আহ্বান ছড়িয়ে দেয়া হয়।

ওই দুটি পেইজে পিযূষকে নিয়ে নানা অশালীন মন্তব্য করা হয়। বাংলাদেশ থেকে তাকে বিতাড়িত করার আহ্বান জানিয়ে অকথ্য ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে স্ট্যাটাসে। এতে বলা হয়,এদেশের আলেম, হাফেজ ও সাধারণ মুসলিমদের হেয় করেছেন পীযূষ। তাই তাকে হত্যা করতে হবে।

পেইজ দুটির স্ট্যাটাসে উল্লেখ করা হয়, ‘বাংলাদেশকে হিন্দুস্থান বানানোর উদ্দেশ্যে পীযূষ বন্দোপাধ্যায় ইসলামকে অপমাণিত করে আবৃত্তি করেছেন বিপ্লুত বাংলাদেশ: মৌলবাদীর দেশ। জঘন্যভাবে ইসলাম অবমাননার জন্য তার মাথার কোন মূ্ল্য নেই।’

ঢাকাটাইমসে এই প্রতিবেদন পড়ে পীযূষ বলেন, ‘আমাকে ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে মৌলবাদীদের এমন হুমকি-ধামকি নতুন কিছু নয়। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তারা এ দেশে গেঁড়ে বেসেছে। এরপর তারা নানা সময় আমাকে নানা হুমকি দিয়ে আসছে। … এরশাদ সরকারের সময় এবং ২০০৪ সালে আমার গ্রামের বাড়িতে হামলাও হয়েছে। তাতেও কোনো লাভ হয়নি। আমি আমার অবস্থানে অটল আছি।

পীযূষ বলেন, ‘ওদের দাবিমতে আমি ভারতীয়দের হয়ে এদেশে দালালি করলে ১৯৭১ সালে কোন দেশের জন্য জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করলাম? স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন করে মরতে মরতেই বা কেন বেঁচে রইলাম।

Facebook Comments