২০১৩ সালের সেরা ১০ সিনেমা

0
12
Print Friendly, PDF & Email
অ-অ+
২০১৩ সালের সেরা ১০টি সিনেমায় উঠে এসেছে মার্কিন, চীনা, ইতালিয়ান ও ইন্দোনেশিয়ানসহ বিভিন্ন দেশের সিনেমা। সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে সেরা সিনেমার তালিকাটি প্রকাশ করেছে বিবিসি।

 

১. ইনসাইড লিউন ডেভিস

 

১৯৬০ সালের নিউ ইয়র্ক শহরের পটভূমিতে একজন সঙ্গীতশিল্পী ও গীতিকারের এক সপ্তাহ তুলে ধরা হয়েছে সিনেমাটিতে। লোকসঙ্গীত শিল্পী ডেভ ভ্যান রংকের জীবনকাহিনী অনুসারে তৈরি সিনেমাটিতে অধিকাংশ সঙ্গীতই সম্পূর্ণ দেয়া হয়েছে। আর এতে সরাসরি গানের আমেজ আনার জন্য সিনেমার সঙ্গীতগুলো একবারে গেয়েছেন অভিনয় শিল্পীরা।

 

সিনেমাটি ২০১৩ সালের কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে গ্র্যান্ড প্রিক্স জয় করেছে। সিনেমাটির পরিচালক জোয়েল কোয়েন ও ইথান কোয়েন। এতে অভিনয় করেছেন অস্কার আইজ্যাক, ক্যারে মুলিগান, জন গুডম্যান, গ্যারেট হেডল্যান্ড ও জাস্টিন টিম্বারলেক।

 

২. আমেরিকান হাসটেল

 

ক্রাইম, কমেডি-ড্রামাভিত্তিক সিনেমা আমেরিকান হাসটেলের পরিচালক ডেভিড ও. রাসেল। ১৯৭০ সালে আমেরিকার রূঢ় ও ধূর্ত জীবনযাপন তুলে ধরেছেন। এটি ধারণ করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন, ওরসেস্টার, ম্যাসাচুসেটস ও নিউ ইয়র্কে। এতে অভিনয় করেছেন ক্রিস্টিয়ান ব্যালে, ব্র্যাডলি কুপার, অ্যামি অ্রাডামস, জেরিমি রেনার ও জেনিফার লরেন্স।

 

২০১৩ সালের সেরা ১০ সিনেমা

 

৩. বিফোর মিডনাইট

 

বিফোর সানরাইজ ও বিফোর সানসেট সিনেমার সিকুয়াল হিসেবে তৈরি হয়েছে রোমান্টিক ড্রামা ফিল্ম বিফোর মিডনাইট। সিনেমাটির পরিচালক রিচার্ড লিংকলেটার। এতে অভিনয় করেছেন ইথান হউকি ও জুলি ডেলপি।

 

৪. দ্য গ্রেট বিউটি

 

ইতালির প্রেক্ষাপটে নির্মিত সিনেমাটির পরিচালক পাওলো সরেনটিনো। ২০১৩ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রিমিয়ার হয় সিনেমাটির।

 

সিনেমার কাহিনী একজন ব্যক্তিকে ঘিরে, যিনি ২০ বছর বয়সে একটি উপন্যাস লিখেছিলেন। তাতে তিনি একটি স্বাচ্ছন্দ্যময় জীবনের প্রত্যাশা করেছিলেন। কিন্তু ৬৫ বছর বয়সে তিনি পর্যালোচনা শুরু করেন তার জীবনের নানা ঘটনা। এসবের মধ্যে ছিল তার প্রথম ভালোবাসা ও নানা অপ্রাপ্তি। যার সব স্মৃতি শহরের ধ্বংসস্তুপ, রাস্তাঘাট ইত্যাদির মাঝে প্রকাশিত হয়। এতে অভিনয় করেছেন টনি সার্ভিলো, কার্লো ভার্ডোন, সাবরিনা ফেরিলি ও কার্লো বুকিরোসো।

 

২০১৩ সালের সেরা ১০ সিনেমা

 

৫. হার

 

মার্কিন রোমান্টিক সায়েন্স ফিকশন সিনেমাটির পরিচালক ও প্রযোজক স্পাইক জোনজ। এতে একজন মানুষ কম্পিউটারের এক বুদ্ধিমান অপারেটিং সিস্টেমের নারী কণ্ঠস্বরের প্রেমে পড়ে যায়। ২০১৩ সালে নিউ ইয়র্ক চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমাটির প্রিমিয়ার হয়েছে। এতে অভিনয় করেছেন জোয়াকুইন ফনিক্স, অ্যামি অ্যাডাম্স, রুনি মারা, অলিভিয়া ওয়াইল্ডি ও স্কারলেট জোহানসন।

 

৬. এ টাচ অফ সিন

 

চীনের অপরাধবিষয়ক সিনেমা এ টাচ অপ সিন। ২০১৩ সালের কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে নমিনেশন পাওয়া সিনেমাটির পরিচালক জিয়া ঝাংকে। এতে অভিনয় করেছেন জিয়াং উ, ঝাও টাও ও ওয়াং বাওকিয়াং।

 

২০১৩ সালের সেরা ১০ সিনেমা

 

৭. দি অ্যাক্ট অফ কিলিং

 

ইন্দোনেশিয়ার প্রেক্ষাপটে নির্মিত ডকুমেন্টারি ধাঁচের সিনেমাটির পরিচালক জসুয়া ওপেনহেইমার। এটি একটি ড্যানিশ-ব্রিটিশ ও নরওয়েজিয়ান যৌথ প্রযোজনা।

 

৮. ফ্রুটভেল স্টেশন

 

আমেরিকান সিনেমাটির লেখক ও পরিচালক রায়ান কোগলার। সিনেমাটির কাহিনী গড়ে উঠেছে অস্কার গ্র্যান্ট নামের ২২ বছর বয়সি এক তরুণের জীবনের শেষ দিনের ঘটনাপ্রবাহের ওপর ভিত্তি করে। ২০০৯ সালের নববর্ষে তাকে পুলিশ গুলি করে হত্যা করে। এতে অভিনয় করেছেন মাইকেল বি. জর্ডান, মেলোনি ডায়াজ, কেভিন ডিউর‌্যান্ড ও অক্টাভিয়া স্পেনসার।

 

২০১৩ সালের সেরা ১০ সিনেমা

 

৯. অল ইজ লস্ট

 

মার্কিন অ্যাডভেঞ্চার ও সারভাইভাল সিনেমা অল ইজ লস্ট-এর পরিচালক জে.সি চ্যান্দর। সিনেমাটিতে একজন মানুষ ভারত মহাসাগরে হারিয়ে যায়। এতে কোনো সংলাপ নেই বললেই চলে। এতে অভিনয় করেছেন রবার্ট রেডফোর্ড।

 

১০. এনাফ সেইড

 

মার্কিন রোমান্টিক কমেডি সিনেমাটির পরিচালক নিকোল হলোফেন্সার। সিনেমাটির চরিত্র উঠে এসেছে এক নারী অন্য এক নারীর সঙ্গে বন্ধুত্ব ও তার সাবেক সঙ্গী পুরুষের সঙ্গে ডেটিং শুরু করা নিয়ে। এরপর সে নারী এক উভয় সংকটে পড়েন। এতে অভিনয় করেছেন জুলিয়া লুইস-ড্রেইফাস, জেমস গ্র্যান্ডোলফিনি, টনি কলিটি, ক্যাথেরিন কিনার, বেন ফ্যালকন ও টবি হাস।
Facebook Comments