রোববার সংসদ নির্বাচন: সারাদেশে ৮০টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত

0
5
Print Friendly, PDF & Email

আসমা মিতা: কাল রোববার দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন। ভোটের সব প্রস্তুতি এরই মধ্যে শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন। নানা কারণে উল্লেখযোগ্য হয়ে উঠেছে এই নির্বাচন। ভোটের মাঠে নেই প্রধান বিরোধী দল বিএনপি। ইতিমধ্যে ১৫৩টি আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় প্রার্থীরা জয়ী হয়ে যাওয়ায় এবার ১৪৭টি আসনে ভোটাভুটি হবে। বিরোধী দল নির্বাচন প্রতিহত করার ডাক দেওয়ায় ভোটের সময় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা এবার প্রধান চ্যালেঞ্জ হয়ে দেখা দেবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এবারই প্রথম একটি সংসদের মেয়াদ থাকা অবস্থায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আরেকটি জাতীয় নির্বাচন। নির্বাচনকালীন সরকারের কাঠামোটি সর্বদলীয়।

বিএনপি নেই ভোটের মাঠে। অন্যদিকে, নানা ঘটনা প্রবাহের পর এরশাদের জাতীয় পার্টি নির্বাচনের মাঠে থাকার বিষয়টি স্পষ্ট হলেও এরশাদ নিজে এর নেতৃত্বে নেই বলে দলীয় সূত্রে বলা হচ্ছে। সব মিলিয়ে ১২টি দল অংশ নিচ্ছে এই নির্বাচনে।

নানা কারণে ইতিহাস তৈরি করতে যাওয়া এই নির্বাচনে এ যাবৎকালের সবচেয়ে কম প্রার্থী অংশ নিচ্ছে। মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিল ১১০৭ জন। প্রধান বিরোধীদলহীন নির্বাচনে তাদের মধ্যে থেকে ১৪৭টি আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ৩৯০ জন প্রার্থী। ( মনোনয়ন জমা)

এবারই প্রথম ভোটের আগেই সবচেয়ে বেশি প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়ে গেছেন। ৩০০ আসনের মধ্যে ১৫৩ জন জয়ী হওয়ায় ১৪৭টি আসনে ভোট হচ্ছে। এর আগে ১৯৯৬ সালের ১৫ ই ফেব্রুয়ারির একদলীয় নির্বাচনেও একক প্রার্থী ছিল ৪৯ জন।

এবার মাদারীপুর, শরিয়তপুর, চাঁদপুর, জয়পুরহাট ও রাজবাড়ী এই পাঁচ জেলায় ভোটের দরকার পড়ছে না।

এবারের ১৪৭টি আসনের ৮০টিকেই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সেনা, পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও অন্যান্যা বাহিনীসহ প্রায় সাড়ে চার লাখ সদস্য নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করছে। সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ জানান, অতীতের সব বারের চেয়ে এবার বেশি সংখ্যক সেনা সদস্য দায়িত্ব পালন করছে। দরকার হলে ৯ জানুয়ারির পরও তারা মাঠে থাকবে

Facebook Comments