অবৈধ সরকারের শপথঃ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

0
4
Print Friendly, PDF & Email

দশম জাতীয় সংসদের শপথগ্রহণকে অনৈতিক বলে উল্লেখ করেছে বিএনপি। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে বলেন, ‘অবৈধ সরকারের শপথ গ্রহণের মধ্যদিয়ে গণতন্ত্রের অশুভ যাত্রার সূচনা হয়েছে।’ 

রোববার সন্ধ্যায় দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, “বাংলাদেশের জন্য আজ একটি কালোদিন। আজ অনৈতিক এবং অবৈধ সরকারের শপথ গ্রহণের মধ্যদিয়ে গণতন্ত্রের অশুভ যাত্রা সূচনা হলো। গণতান্ত্রিক চেতনাকে কবর দিয়ে স্বৈরতান্ত্রিক একনায়কতন্ত্রের কালিময় যাত্রা শুরু হলো।”

তিনি আরো বলেন, “উদ্ভট, হাস্যকর তথাকথিত মহাজোটের একতরফা ভোটারবিহীন নির্বাচনের সাজানো নাটকের মধ্য দিয়ে জনগণের সমর্থনহীন একটি স্বৈরতান্ত্রিক সরকার এই দেশের মানুষের ওপর চাপিয়ে দেয়া হলো। এই সরকারের প্রতি বাংলাদেশের শতকরা ৯৫ ভাগ মানুষের কোন সমর্থন নেই।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “বিরোধীদল যখন দেশে শান্তি ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার , গণতন্ত্রের পথে চলছে তখন আওয়ামীলীগ গণতান্ত্রিক রীতিনীতি ও নৈতিকতাকে বিসর্জন দিয়ে স্বৈরতন্ত্রের পথে চলতে শুরু করলো। বাংলাদেশকে আবার সুপরিকল্পিতভাবে অন্ধকারে নিক্ষেপ করা হলো।”

বাংলাদেশের মানুষ এই সরকারকে মেনে নেবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, “বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী স্বাধীনচেতা মানুষ কোনদিনই এই সরকারকে বৈধ সরকার হিসেবে স্বীকৃতি দেবে না ও মেনে নেবে না।”

আবার নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, “আমরা এই অগণতান্ত্রিক ও স্বৈরতান্ত্রিক পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। অবিলম্বে এই অবৈধ সরকারকে পদত্যাগ করে সকল দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে একটি সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান জানাচ্ছি।”

Facebook Comments