সমকামিতা নিয়ে সিনেমা ‘১০ জুলাই’

0
25
Print Friendly, PDF & Email

২৬ জানুয়ারি- ভারতে বেশকিছু দিন ধরেই সমকামীদের নিয়ে যখন তুমুল হইচই, ঠিক তখনই বোমা ফাটালেন পরিচালক রাতুল গঙ্গোপাধ্যায়। প্রায় বছর দুয়েক আগে সমকামীদের কথা ভেবে তিনি নাকি তৈরি করেছিলেন বাংলা সিনেমা ‘১০ জুলাই’ ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে ফেব্র“য়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে।

জানা গেছে, এরই মধ্যে টি এস কে ফিল্মস-এর সমকামিতার সিনেমা ‘১০ জুলাই’ সিনেমাটির মিউজিক রিলিজ করা হয়েছে বেশ ঘটা করে। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত থেকে শুরু করে এ ছবির অন্যতম গায়িকা ঊষা উথ্থুপ সবাই উপস্থিত ছিলেন। ‘১০ জুলাই’-এর মধ্যে দিয়ে ছবির সবাই ৩৭৭-এর বিপক্ষে দাঁড়ালেন আরও একবার।

কিন্তু সারা দেশে সমকামী প্রেম যেখানে নিষিদ্ধ, সেখানে এই ছবির রিলিজ নিয়ে কোনও সমস্যা হচ্ছে না?

পরিচালক বলেন, এখন পর্যন্ত সব কিছু ঠিকই আছে, কোনও সমস্যা নেই। আমি যখন ছবিটা তৈরি করি তখনও তো ৩৭৭ বহাল তবিয়তেই ছিল। তৈরি করতে যখন কোনও অসুবিধা হয়নি, আশা করি রিলিজেও কোনও অসুবিধা হবে না।

এরই মধ্যে সার্টিফিকেটও নাকি দিয়ে দিয়েছে সেন্সর বোর্ড। দু-একটা দৃশ্য একটু এডিট করতে হয়েছে। তবে সেই দৃশ্য সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানাননি পরিচালক। হয়তো কোনও সাহসী দৃশ্য ছিল!

এ ছবির নায়ক অভ্রজিত বললেন, আমি তো অভিনেতা। তাই ক্যামেরাকে আমার আবার কীসের লজ্জা! বরং ক্যামেরার পেছনে জামাকাপড় খুলতে আমার একটা কিন্তু আছে। তাই রাতুলদা ন্যুড সিন শুট করার কথা বললে আমার সেইভাবে কোনও অসুবিধা হয়নি। তবে দৃশ্যটা শুট করার সময় পরিচালক, ক্যামেরাম্যান আর চিরঞ্জিৎদা ছাড়া আর কাউকে আমরা অ্যালাও করিনি।

এই ছবি দিয়ে অনেক দিন পর রুপালি পর্দায় ফিরেছেন চিরঞ্জিৎ। তাও আবার একজন সমকামী অফিস বসের ভূমিকায়। দেবশ্রী রায় এই ছবির জন্য একটি আইটেম নম্বর নেচেছেন। আর ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

এবার আসা যাক ‘১০ জুলাই’ নামকরণ প্রসঙ্গে। পরিচালক বললেন, ছবির কাহিনিতে এই তারিখেই তিন তিনটা ঘটনা ঘটবে। আর ওই তিন তারিখের ঘটনার ওপরেই ছবির কাহিনি দাঁড়াবে। এজন্যই এ ছবির নামকরণ।

‘পুরুষ হও বা নারী, তুমিই আমার সখা’- ঋগ্বেদের এই উক্তিকে পুঁজি করেই ১৪ ফেব্র“য়ারি মুক্তি পেতে যাচ্ছে ১০ জুলাই সিনেমাটি। মুক্তির আগেই ছবিটি নিয়ে ব্যাপক আলোচনার ঝড় মিডিয়াপাড়ায়।

Facebook Comments