শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগ অঞ্জু ঘোষ’র

0
16
Print Friendly, PDF & Email

 

 

 

গাজীপুর নিউজ ডেস্কঃ অঞ্জু ঘোষ, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রাঙ্গন থেকে হারিয়ে যাওয়া একটি নাম। বেদের মেয়ে জোছনা খ্যাত এই অভিনেত্রী স্থায়ীভাবে কলকাতায় বসবাস করছেন ১৯৯৬ সাল থেকে। লাইমলাইটে অনুপস্থিত হলেও সেখানে রুপালি পর্দার পাশাপাশি যাত্রায় অভিনয় করছেন নিয়মিত। তবে হঠাত্ করেই একটি মামলার মাধ্যমে আবারও আলোচনায় এলেন অঞ্জু ঘোষ। প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার (পিটিআই) বরাত দিয়ে ভারতের একটি দৈনিক পত্রিকা জানায়, হয়রানি ও প্রতারণার শিকার হয়ে যাত্রাদলের এক ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছেন অঞ্জু ঘোষ। 

এফআইআর থেকে জানা গেছে, গত সোমবার রাতে উত্তর দিনাজপুরের ইটাহারে একটি যাত্রায় অভিনয় করতে যান অঞ্জু ঘোষ। তখন তিনি জানতে পারেন তার নাম ভাঙিয়ে টিকেট বিক্রির প্রতারণা করছে আরেকটি যাত্রাদল। প্রতারকদের শাস্তি চেয়ে ইটাহার থানায় এফআরআই করেন অঞ্জু ঘোষ। পরে ওই যাত্রাদলের ব্যবস্থাপক তার দলবল নিয়ে মালদায় অঞ্জু ঘোষকে গাড়ি থেকে নামিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। এ অভিযোগে মালদার ইংলিশবাজার থানায় আরেকটি এফআইআর করেন অঞ্জু ঘোষ। এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মালদহ জেলার পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট কল্যাণ মুখার্জী বলেন, ‘অভিযোগটি সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠানো হয়েছে।’ ১৯৭২ সালে যাত্রায় অভিনয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন ফরিদপুরের মেয়ে অঞ্জলি ঘোষ।

এফ কবির চৌধুরী পরিচালিত সওদাগর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ১৯৮২ সালে চলচ্চিত্রাঙ্গনে পা রাখেন। ১৯৮৯ সালে বেদের মেয়ে জোছনা ছবিতে অভিনয় করে বিপুল জনপ্রিয়তা পান অঞ্জু ঘোষ। ১৯৯১ সালে দুই বাংলার যৌথ প্রযোজনায় ছবিটির নতুন সংস্করণ মুক্তি পেলে দুই বাংলাতেই প্রতিষ্ঠিত হন তিনি।

 

 

 

Facebook Comments
শেয়ার করুন