“শিগগির জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ হচ্ছে”

0
13
Print Friendly, PDF & Email

 

 

 

গাজীপুর নিউজ ডেস্ক:মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীরা দেশে কোনো রাজনীতি করতে পারবে না । মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে খুব শিগগির জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। তাদের বিচার হবে। সোমবার বিকালে শেখ রাসেল মেমোরিয়াল সমাজ কল্যাণ সংস্থা আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন বলে জানিয়েছে। শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি শেখ সিদ্দিক।

‘মানবাধিকার লঙ্ঘন ও শিশু হত্যা প্রতিরোধে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য সতীশ চন্দ্র রায়, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান দুর্জয়, সাংস্কৃতিক জোটের নেতা অরুণ সরকার রানা ও ফাতিমা জলিল সাথী। সভায় মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক যুদ্ধাপরাধী ও সাম্প্রদায়িকতামুক্ত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, হরতাল অবরোধের নামে নারী-শিশুসহ সাধারণ মানুষ হত্যা বন্ধ করার লক্ষ্যে সরকার প্রয়োজনে আইন সংশোধন করবে। বিগত ৬ মাসে বিএনপি-জামায়াত-শিবির কর্মীদের হাতে যারা হতাহত হয়েছে তাদের দায়িত্ব সরকার নেবে এবং দোষীদের বিচারের আওতায় আনা হবে। মন্ত্রী আরও বলেন, যারা আজ বাংলাদেশের মানবাধিকারের কথা বলে তারা একাত্তর সালে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিল। যখন শিশু রাসেলকে হত্যা করা হয়েছিল তখন মানবাধিকার রক্ষাকারীরা কথা বলেননি। টেলিভিশনের আলোচকরা মানবাধিকার নিয়ে কথা বললেও পেট্রোল বোমা মেরে নারী-শিশুসহ বাসযাত্রী হত্যা করার কথা বলেন না।

 

 

 

Facebook Comments
শেয়ার করুন