বার কাউন্সিল পরীক্ষাঃ ক্ষোভে ফুঁসছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর আইনের ছাত্রছাত্রীরাঃ কঠোর আন্দোলনের প্রস্তুতি

0
25
Print Friendly, PDF & Email
bangladeshbarcouncil

সহ সম্পাদকঃ

নিয়ামুস সালেহ মিশুক-০১৯৩৫৪৮৪১৫১

শিক্ষানবিশ আইনজীবী, ঢাকা জজ কোর্ট।

বাংলাদেশে এখন সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর পাশাপাশি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলো মানসম্মত শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছে, কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় যে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর চাইতে ভালো মানের শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছে এদের মধ্যে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়, এ আই ইউ বি, নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইস্টওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়, নরদার্ন বিশ্ববিদ্যালয় উল্লেখযোগ্য। কিন্তু তারপরও এখন একটি সুযোগ সন্ধানি মহল তাদের ঘৃণ্য লালসা চরিতার্থ করার জন্য জিম্মি করে রেখেছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আইনের ছাত্রছাত্রীদের স্বপ্ন বার কাউন্সিল পরীক্ষা আর একটি সনদ। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য আইন পাস করা একটি ছাত্র যখন বার কাউন্সিলে যায় ইন্টিমেসন পেপার কিনতে তাকে ইন্টিমেসন পেপার দেয়া হচ্ছে না।

অপর দিকে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের এল এল এম এর ছাত্র মেহেদী হাসান সবুজ, তার কাছ থেকে জানা যায় সে সাত মাস হয়েছে বার কাউন্সিলে তার ইন্টিমেসন পেপার জমা দিয়েছে গত বৃহস্পতিবার সে বার কাউন্সিলে যায় রেজিস্ট্রেশন করতে এবং সেখান থেকে তাকে বলে দেয়া হয়েছে “বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের রেজিস্ট্রেশন এখন বন্ধ আছে, কিন্তু কবে নাগাদ চালু হবে বলা যাচ্ছে না”–এটা হচ্ছে যারা আগে ইন্টিমেসন পেপার কিনেছে তাদের অবস্থা।
এর কারণ খুজতে গিয়ে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার অনুষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামানের ভাষ্য মতে- “বার কাউন্সিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের(UGC) কাছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করে যাওয়া ছাত্র ছাত্রী দের নামের একটা তালিকা দিতে বলেছে, কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন(UGC) তালিকা দিতে ব্যর্থ হয়েছে, এ কারণে আপাতত সমস্যা হচ্ছে”। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার অনুষদের এক ছাত্রের কাছ থেকে জানা যায় তারা এই সমস্যার বিষয়ে তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল(অবঃ) মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম এর সাথে এ বিষয়ে কথা বলেছে, তিনি বলেছেন -কতিপয় অসাধু মহল হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য এ সমস্যার সৃষ্টি করেছে, আমরা আমাদের ছাত্রছাত্রীদের নামের তালিকা বার কাউন্সিলে পাঁঠিয়েছি আমাদের ছাত্রছাত্রীদের কোন সমস্যা হবে না”। কিন্তু একজন সদ্য পাশ করা আইনের ছাত্রের দিক থেকে ভাবলে দেখা যায় বাস্তবতা, এক দিকে যেমন একটি সনদের জন্য সে পাচ্ছে না আইনজীবী হিসেবে পরিচয়, ভালো চাকরি, অন্য দিকে তাদের পরিবারের আশা যে তাঁদের সন্তান এখন উপার্জন করবে ।
এছারা, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার অনুষদের ছাত্র ছাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা যায় তারা এ সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে কঠোর আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এ বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত না নিলে এটি একটি জাতীয় সমস্যায় রুপ ধারণ করতে পারে, এ বিষয়ে সরকার ও যথাযত কর্তৃপক্ষের সময় উপযোগী হস্তক্ষেপ কাম্য।

Facebook Comments