ভারতে পাচার হওয়া মাফিয়া এখনো আতঙ্কিত

0
19
Print Friendly, PDF & Email
Kaliakoir Map

প্রতিমাসে মোটা অংকের টাকা উপার্জনের লোভ দেখিয়ে ভারতে পাচার করার পর ৬ মাস পালিয়ে থেকে অবশেষে উপজেলার বক্তারপুর গ্রামে ফিরে এসে এখনো আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন মাফিয়া আক্তার।  গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলা সদর থেকে ২ কিলোমিটার দুরত্বে বক্তারপুর গ্রামে গিয়ে কথা হয় মাফিয়া আক্তারের সাথে। তিনি জানান, আমার দুঃসম্পর্কের খালা একই উপজেলার সাহেবাবাদ গ্রামের সিরাজ মোল্লার স্ত্রী লিলি বেগম (৫৫) আমাকে ও আমার মাকে ডেকে নিয়ে জানান আমাকে বিদেশ পাঠালে প্রতিমাসে বাসা বাড়িতে কাজ করে অনেক টাকা উপার্জন করতে পারবো।  তখন আমি বলি আমরাতো গরীব মানুষ বিদেশ যেতে অনেক টাকা দরকার আমরা পাবো কোথায়।  তিনি বলেন তোমরাতো আমার আত্মীয় তাই বেশী টাকা লাগবে না মাত্র ১ লাখ টাকা দিলেই হবে।  পরে দরকষাকষির একপর্যায়ে ৭০ হাজার টাকা দিলে লিলি খালার মেয়ে পারভীন আমাকে গাড়িতে উঠিয়ে ভারত নিয়ে যায়। সেখানে গিয়ে আমার সামনেই এক লোকের সাথে দরদাম করে আমাকে বিক্রি করে দিয়ে ওই লোকের সাথে যেতে বলে।  বিষয়টি বুঝতে পেরে আমি প্রশ্রাব করার কথা বলে দৌড়ে গিয়ে এক বাড়িতে আশ্রয় নিই।  এবং তাদেরকে আমার জীবন রক্ষার আবেদন জানাই।  একটু পরে সেই লোক ওই বাড়িতে গিয়ে আমাকে জোর পূর্বক তুলে নিতে চাইলে আশ্রয়দাতার সহযোগীতায় আমি বেচে যাই।  তারা মাঝে মধ্যেই বাড়ির আশে পাশে ওৎ পেতে থাকে আমাকে ধরে নিয়ে যাবার জন্য। এভাবে সেখানে দীর্ঘ ৬ মাস পালিয়ে থেকে আশ্রয়দাতার সহযোগীতায় অবশেষে বাংলাদেশে ফিরে আসি।  এদিকে আমাকে পাচারকারী পারভীন ও তার মা আমার মা-বাবাকে হুমকি দিচ্ছে আমাকে ফিরিয়ে দেবার জন্য।  আমি বাড়িতে ফিরে এসে এখনো আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।  খালা নামধারী পাচারকারী লিলি বেগম যদি আমাকে ধরে নিয়ে যায়।

Facebook Comments