শ্রীপুরে ভূমি অফিসে কর্মকর্তাকে ভয় দেখিয়ে প্রতিবেদন লেখে নিলেন প্রভাবশালী

0
6
Print Friendly, PDF & Email

শ্রীপুরে ভূমি অফিসে কর্মকর্তাকে ভয় দেখিয়ে প্রতিবেদন লেখে নিলেন তেলিহাটি ইউনিয়নের এক প্রভাবশালী থানায় জি.ডি (নং- ৮৪০ )। জি.ডি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ মে সোমবার দুপুরে তেলিহাটি ইউনিয়নের ভূমি অফিসে আ’লীগের সভাপতির নেতৃত্বে জয়দেবপুর ও তার বাহিনী লোকজন নিয়ে ভূমি কর্মকর্তাদের ভয় দেখিয়ে প্রতিবেদন লেখিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে ভূমি অফিসের সহকারি নায়েব আব্দুল বাছেদ শ্রীপুর থানায় একটি জি.ডি করেন। জানা গেছে, তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী গ্রামের মৃত আ: জলিলের পুত্র বৃদ্ধ নুরু মিয়া ৩৪ শতাংশ ও ছাতির বাজার আমিরের পুত্র জসিম মাস্টার  ২২ শতাংশ জোত জমি কে ভূমিহীনের কাগজ দেখিয়ে খারিজ করলে জমির জোত মালিক গং উপজেলা সহকারী ভূমি অফিসে অভিযোগ দিলে অভিযোগের ভিত্তিতে সহকারী ভূমি সরেজমিনে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য ইউনিয়ন ভূমি অফিসে নোটিশ দেন। ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী নায়েব বাছেদ তদন- করে জোত মালিক গংদের নামে সঠিক কাগজপত্র পাওয়ায় প্রতিবেদন দাখিল করেন। এই প্রেক্ষিতে স’ানীয় তেলিহাটি ইউনিয়নের সাইটালিয়া গ্রামের মৃত ইউসুব আলী মোড়লের পুত্র ও স’ানীয় আ’লীগের সভাপতি আমির আলী মোড়ল তার নেতৃত্বে গাজীপুর ও শ্রীপুর ২০/৩০ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী ভূমি অফিসের কর্মকর্তাদের জিম্মি করে জোর পূর্বক আরেকটি প্রতিবেদন তার পক্ষে লেখে নেন। শ্রীপুর থানার একাধিক দারোগা ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছেন। ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী কর্মকর্তাকে জোর পূর্বক আমির আলী মোড়ল টেবিলে বসিয়ে প্রতিবেদন তার মন মতন লেখিয়ে নেন। জমির জোতদার বৃদ্ধ নুরু মিয়া জানান, সরকার ক্ষমতা আসার পর আমির আলী মোড়ল আমার জমিতে জোর পূর্বক ২/৩টি টিন দিয়ে একটি ছাপড়া নির্মান করে দখল নিয়েছে। নিয়ে যাওয়ার কথা বললে আমার নামসহ কয়েক যুবকের নামে শ্রীপুর থানায় চাঁদা বাজী মামলা দিয়ে হয়রানী করছেন কোর্ট থেকে জামিন নিয়ে আসার পথে হামলা চানাল আমীর আলী মোড়লের লোকজন। এব্যাপারে আমির আলী মোড়ল জানান, কাগজপত্র পত্র সঠিক থাকা স্বত্বেও সহকারী নায়েব কাগজপত্র গোপন রেখে প্রতিবেদন দাখিল করেন

Facebook Comments