অপহৃত মা-মেয়েকে তিন মাস ধরে ধর্ষণ

0
12
Print Friendly, PDF & Email
Dhorson

গাজীপুর২৪.কম নিউজ আন্তর্জাতিক ডেস্ক :ভারতের উত্তরপ্রদেশে অপহরণ করে তিন মাস ধরে মা ও মেয়েকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তিন মাস আগে রাজোরি থানা এলাকার এক গ্রাম থেকে মা ও মেয়েকে অপহরণ করা হয়। মুজাফফরপুর জেলার বাসিন্দা ওই ধর্ষিতারা। এই ঘটনায় পুলিশ দুই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করেছে।
মা ও মেয়েকে অপহরণ করার পর, গত তিন মাস ধরে তাদের ধর্ষণ করা হয় বলে পুলিশ তদন্তে জানতে পেরেছে। শুধু তাই নয়, ধর্ষণের ফলে মেয়েটি দুই মাসের গর্ভবতী হয়ে পড়েছে। পুলিশ ধৃত দুজনের বিরুদ্ধে অপহরণ, ধর্ষণ এবং অপহরণের যোগসাজশ করার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। শুক্রবার ধৃতদের আদালতে তোলা হয়। তদন্তের স্বার্থে তাদের পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।
পুলিশ জানিয়েছে, তিন মাস আগে উদ্ধার হওয়া মা ও মেয়ের নিখোঁজের মামলা রাজোরি থানায় দায়ের করা হয়েছিল। প্রাথমিক তদন্তে বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পারে, অপহৃত মা ও মেয়েকে উত্তরপ্রদেশের মুজাফফরনগরের বারবালা গ্রামে লুকিয়ে রাখা হয়েছে। ওই গ্রামের দুই ব্যক্তি তাদের অপহরণ করে লুকিয়ে রেখেছে।
এই খবর জানতে পেরে পুলিশের একটি বিশেষ দলকে ওই গ্রামে পাঠানো হয়। তার পরই অপহৃতদের উদ্ধার করা হয়। পুলিশ গ্রেপ্তার করে দুই অভিযুক্ত অপহরণকারীকে। ওই থানার ইনচার্জ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, অপহরণকারী মহম্মদ এহসান এবং মহম্মদ রিয়াজের বাড়ি বরবালা এলাকায়।  মা ও মেয়ের ভাষ্য অনুযায়ী, অভিযুক্তরা কাপড় ব্যবসায়ী। ওই দুজন তাদের ফুসলিয়ে ওই গ্রামে নিয়ে যায়। তিন মাস ধরে তাদের ওপর পাশবিক অত্যাচার করা হয়। পুলিশ মেয়েটি ডাক্তারি পরীক্ষা করে জানতে পেরেছে, টানা তিন মাসের ধর্ষণের কারণে সে দুই মাসের গর্ভবতী।

Facebook Comments
শেয়ার করুন