কাপাসিয়ায় তালাকের কথা শুনে আত্মহত্যা

0
8
Print Friendly, PDF & Email
attohotta-fasi

কাপাসিয়া উপজেলার সন্মানিয়া ইউনিয়নের দক্ষিনগাঁও গ্রামে পারিবারিক বিরোধ ও বনিবনা না হওয়ার কারনে আনুষ্ঠানিক ভাবে তালাক দেয়ার কথা শুনে গৃহবধূ এ্যামিলি বেগম (২৪) গতকাল শুক্রবার ভোরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর মর্গে পাঠিয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার দক্ষিনগাঁও গ্রামের বজলুর পুত্র লেগুনা চালক শরিফ গত ৬ মাস আগে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই তাদের মাঝে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়া ছিল। গ্রাম্য শালিসে আপোষ মিমাংসা না হওয়ায় গতকাল শুক্রবার তাদের আনুষ্ঠানিক ভাবে তালাক (বিবাহ্ বিচ্ছেদ) দেয়ার কথা ছিল। এ সিদ্ধান্তকে গৃহবধূ এ্যামিলি মেনে নিতে পারেনি। এর আগেই ভোরে সবার অজান্তে বাড়ির পাশের একটি লিচু গাছে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

Facebook Comments
শেয়ার করুন