পূর্বজন্মের খুনিকে ধরিয়ে দিল শিশু!

0
15
Print Friendly, PDF & Email
140144940810388327 10203766846442204 2065643436 n

গাজীপুর২৪.কম নিউজ ডেস্ক :পুনর্জন্মে বিশ্বাস নিয়ে বহুকাল ধরে মানুষের মধ্যে তর্ক বিতর্ক চলে আসছে। অনেকে বিশ্বাস করেন আবার অনেকেই বিশ্বাস করেন না। কিন্তু এবার যেই ঘটনাটি জানতে পারবেন তা হয়তো আপনাকে দ্বিতীয়বার ভাবিয়ে তুলবে বিষয়টি নিয়ে।

তিন বছর বয়সী একটি শিশু জানিয়েছে তার আগের জীবনের খুনের ঘটনার কথা ও মৃতদেহের অবস্থান। অবাক হচ্ছেন? ইসরাইল ও সিরিয়ার বর্ডারের কাছে গোলান হাইটস এলাকায় ঘটেছে একটি অবিশ্বাস্য ঘটনা।

প্রতিদিন মতই বড় ভাইবোনদের সাথে খেলায় মেতে ওঠে সাধারণ একটি শিশু। একদিন হঠাৎ করেই ছেলেটির মনে হলো তার আগেও একবার জন্ম হয়েছিলো এবং সেই জীবনে একটি কুঠার দিয়ে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছিলো তাকে। খুনের পর লুকিয়ে রাখা হয়েছিলো তার মৃতদেহটি। তার আগের জীবনের অস্তিত্বটি হারিয়ে গিয়েছিলো এভাবেই। বিষয়টি সে তার পরিবারকে জানালো। এমন কি তার মৃতদেহটি কোথায় গুম করে রাখা হয়েছিলো সেই তথ্যও পরিবারকে জানালো ওই শিশুটি। তার পরিবার মিথ্যে ভেবে হেসেই উড়িয়ে দিয়েছিলো পুরো ব্যাপারটি।  কিন্তু ছেলেটির ক্রমাগত চাপ ও আত্মবিশ্বাসের কারণে পরিবারটি একসময়ে বিষয়টি ভেবে দেখে এবং সেই গ্রামে যায় যেখানে ছেলেটির ভাষ্যমতে তার আগের জীবনের মৃতদেহটি লুকোনো আছে।

জায়গা মত মাটি খুঁড়ে দেখা গেলো সেখানে সত্যিই একটি মৃতদেহ মাটি চাপা দেয়া আছে। এবং আশ্চর্য বিষয় হলো যেই কুঠারটি দিয়ে খুন করা হয়েছে সেটাও আছে মৃতদেহের সাথেই। ছেলেটি খুনির পুরো নামটাও মনে রেখেছিলো এবং জানিয়েছিলো তার পরিবারকে।

তার পরিবার ওই এলাকায় লোকটি সম্পর্কে খোঁজ খবর নিতে শুরু করে। তখন জানতে পারে যে, সেই লোকটি প্রায় ৪ বছর ধরে নিখোঁজ রয়েছে।

সবচাইতে আশ্চর্য বিষয় হলো মৃতদেহের মাথার যেই স্থানে কুঠারের আঘাতে মৃত্যু হয়েছিলো ঠিক সেই স্থানেই শিশুটির মাথায় একটি জন্মদাগ আছে। ছেলেটির বলা নাম অনুসারে পুলিশ খুনিকে খুঁজে বের করেছে এবং সকল তথ্য ও প্রমাণ মিলিয়ে দেখেছে। খুনি তার কৃতকর্মের কথা স্বীকার করেছে পুলিশের কাছে।

Facebook Comments
শেয়ার করুন