এরপরও কি কোকা-কোলা খাবেন?

0
17
Print Friendly, PDF & Email
ee83eb087a970eebab7bdac4aceda7c3 L

আচ্ছা একটা ব্যাপার চিন্তা করুন তো, আপনার মাউথওয়াশ তরলটির গন্ধ তো অনেক সুন্দর, এর মাঝে যদি কেউ চিনি মিশিয়ে দিয়ে আপনাকে বলে “এটা অনেক সুস্বাদু!” তাহলে আপনি কি সেটা পান করবেন? অবশ্যই না, কারণ সেটা তো কেমিক্যাল! তাহলে আপনি কোকা-কোলা খাচ্ছেন কেন? সেটাও তো কেমিক্যাল! যারা জানেন যে কোকা-কোলা শরীরের জন্য ক্ষতিকর এবং এর থেকে দূরে থাকছেন, তারা আরও নতুন কিছু জেনে নিতে পারেন এই পানীয়টি সম্পর্কে। আর যারা একে মজা করে খেয়ে চলেছেন প্রতিনিয়ত, তাদের জন্য তো এসব জেনে রাখা খুবই জরুরি। বিশ্বখ্যাত এই পানীয়টি মানব দেহের জন্য মারাত্মক। এর অ্যাসিডিটির পরিমাণ মোটামুটি গাড়ির ব্যাটারির কাছাকাছি। হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়, শরীরের হাড় নরম করে ফেলে, পাকস্থলীর টিস্যু হজম করে ফেলে আর সেই সাথে রয়েছে ক্যান্সারের সম্ভাবনা। আর একে ব্যবহার করে করা যায় এমন অদ্ভুত সব কাজ, যা জানতে পারলে সারা জীবনে যত কোকা-কোলা খেয়েছেন সব উগড়ে দিতে ইচ্ছে হবে আপনার! কী সেই কাজ, যাতে ব্যবহার করা যেতে পারে কোকা-কোলা?

    ১. কাপড় থেকে তেলের দাগ উঠিয়ে ফেলে

    ২. মরিচা দূর করতে পারে, মরচে পড়ে শক্ত হয়ে এঁটে থাকা নাট-বল্টু ঢিলা করে দেয়

    ৩. কাপড় থেকে রক্তের দাগ উঠিয়ে ফেলতে পারে

    ৪. মেঝে থেকে তেলের দাগ উঠিয়ে ফেলতে পারে

    ৫. এর মাঝে থাকা অ্যাসিড মেরে ফেলতে পারে বাগানে উপদ্রব করা শামুক জাতীয় প্রাণী

    ৬. পুড়ে যাওয়া হাঁড়ি-পাতিল থেকে পোড়া দাগ উঠিয়ে ফেলতে পারে

    ৭. চায়ের কেটলি থেকে পুরনো দাগ তুলে ফেলতে পারে

    ৮. গাড়ির ব্যাটারির টার্মিনালে পড়া শক্ত ময়লা তুলে ফেলতে পারে

    ৯. গাড়ির ইঞ্জিন পরিষ্কার করে

    ১০. পুরনো কয়েন চকচকে করে ফেলে

    ১১. টাইলসের মাঝে পড়ে যাওয়া ময়লা উঠিয়ে ফেলে

    ১২. মানুষের দাঁত গলিয়ে ফেলতে পারে!

    ১৩. চুল থেকে চুইং গাম তুলে ফেলতে পারে

    ১৪. চিনামাটির বাসনপত্র থেকে দাগ তুলে ফেলতে পারে

    ১৫. ময়লা সুইমিং পুলের পানিতে কয়েক লিটার কোকা-কোলা ঢেলে দিলে পানিতে পরে থাকা লালচে স্তর দূর হয়ে যাবে

    ১৬. ডায়েট কোলা ব্যবহার করে চুলের ডাই তুলে ফেলা যায় অথবা হালকা করে ফেলা যায়

    ১৭. কার্পেটের থেকে মার্কারের দাগ উঠিয়ে ফেলতে পারে।

    ১৮. টয়লেট পরিষ্কার করতে ব্যবহৃত হতে পারে!

    ১৯. কোক আর অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল ব্যবহার করে ক্রোমিয়ামের জিনিসপত্র অনেক উজ্জ্বল করে ফেলা যায়

    ২০. ধাতব আসবাবপত্র থেকে রঙ উঠিয়ে ফেলতে পারে
 
চিন্তা করুন, কোকা-কোলা ব্যবহার করা যেতে পারে কাপড় পরিষ্কার করার ডিটারজেন্টের মতো, মরচে তোলার তার্পিনের মতো, ডিশওয়াশিং লিকুইডের মতো এমনকি বাথরুম পরিষ্কারের হারপিকের মতো! তো এসব রাসায়নিকের সাথে তুলনা করা যায় যে পানীয়কে, তা খাওয়া কি আসলে শরীরের জন্য ভালো? ভালোর কথা বাদ দিন, এটা শরীরের জন্য কতো খারাপ ভাবুন তো! এরপরেও কি আপনি কোকা-কোলা খেতেই থাকবেন?

Facebook Comments
শেয়ার করুন