ব্যাটারি সম্পর্কে আপনার যত ভুল ধারনা

0
13
Print Friendly, PDF & Email
mobile-battery

মোবাইল চার্জিং কিংবা ব্যাটারি নিয়ে প্রতিনিয়তই আমরা বিভিন্ন ধরনের কথা শুনে থাকি। বিভিন্ন রকম গুজব প্রচলিত রয়েছে এই বিষয়কে ঘিরে। আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরা হবে এমনি কয়েকটি ভুল ধারণা এবং সেগুলোর সঠিক দিকগুলো।

নন-ব্র্যান্ডেড চার্জার ব্যাটারির ক্ষতি করে: অন্য ব্র্যান্ডের কিংবা নন ব্রান্ডেড চার্জার, সন্তোষজনক না হলেও এগুলো বেশ ভালোই কাজ করে। তবে একদমই কমদামী নড়বড়ে চার্জার ব্যবহার না করাই ভালো। বিভিন্ন গবেষনায় দেখা গেছে, অফিসিয়াল চার্জারের মত কাজ না হলেও বেশ ভালোভাবেই এগুলো কাজ করে।

চার্জ দেওয়া অবস্থায় ফোন ব্যবহার ঠিক না: অনেকেই মনে করে, ফোন চার্জ দেওয়ার সময় এটি ব্যবহার করলে ব্যাটারির বিস্ফোরণ ঘটতে পারে। এটি একেবারেই ভুল কথা। আপনি যদি ফোনের অরিজিনাল চার্জার কিংবা ভালো মানের থার্ড পার্টি চার্জার ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে এটা নিয়ে আপনার একদমই চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

রাতভর চার্জ দিলে ব্যাটারি ক্ষতিগ্রস্ত হয়: এই উপদেশ শোনেননি, এমন মানুষ কমই আছে। তবে মানুষের চেয়ে তাদের মোবাইল ফোন বেশি স্মার্ট। আপনার ফোনের ব্যাটারি পূর্ন চার্জ হয়ে গেলে এটি নিজে থেকেই চার্জিং বন্ধ করে দিতে পারে। ব্যাপারটা অনেকটা এরকম, একটি গ্লাস পানিতে পূর্ন থাকলে আপনি কি আরো পানি রাখতে পারবেন? আপনার ব্যাটারির চার্জ ৪০% থেকে ৮০% রাখুন। ব্যাটারি অনেকদিন ব্যবহার করতে পারবেন।

আপনার ফোন কখনোই বন্ধ করার দরকার নেই: আপনার ফোন একটি যন্ত্র হতে পারে, কিন্তু তারপরেও এর বিশ্রামের প্রয়োজন রয়েছে। অ্যাপলেরর একজন বিশেষজ্ঞ বলেছিলেন,” আপনার ফোনের পারফর্মেন্স ঠিক রাখতে বিভিন্ন সময় এটিকে বন্ধ রাখা প্রয়োজন, বিশেষ করে আপনি যখন রাতে ঘুমাতে যান।” তবে আপনার ব্যাটারি লাইফ ঠিক রাখতে সপ্তাহে কমপক্ষে একবার হলেও বন্ধ করুন। আর একবার ফোন রিস্টার্ট দিলে ব্যাটারি লাইফ বেশ ভালোই বেড়ে যায়।

ব্যাটারি পুরোপুরি শেষ না হলে চার্জ দেওয়া যাবে না: একবারে অনেকক্ষণ চার্জ না দিয়ে প্রতিদিন চার্জ দেওয়া ভালো। বর্তমানে অধিকাংশ ফোনে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়। চার্জশূন্য হলে এসকল ব্যাটারি বেশ ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। ব্যাটারির একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক লাইফ সাইকেল থাকে। একবার চার্জশূন্য হলে একটি সাইকেল শেষ হয়।

Facebook Comments