টঙ্গীতে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ

0
17
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রির্পোটার: টঙ্গী পাইলট স্কুল এন্ড গালর্স কলেজ ২৬ আগষ্ট মঙ্গলবার বিকেলে মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে নূর মোহাম্মদ (১৭), সুমন (১৮), শিমুল (১৬), রিফাত হোসেন (১৬) ও হযরত আলী (১৬) ও দর্শকসহ কমপক্ষে ১৫জন আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে টঙ্গীর বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে গুরতর আহত নূর মোহাম্মদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, টঙ্গী পাইলট স্কুল এন্ড গালর্স কলেজ মাঠে টঙ্গী থানা স্কুল ও মাদ্রাসা ক্রীড়া সমিতির উদ্যোগে স্থানীয় সাতাইশ উচ্চবিদ্যালয় এন্ড কলেজ এবং সফিউদ্দিন সরকার একাডেমী এন্ড কলেজের মধ্যে চুড়ান্ত পর্বের খেলা চলছিল। এক পর্যায় সাতাইশ স্কুল এন্ড কলেজের খেলোয়াড়রা সফিউদ্দিন সরকার একাডেমিকে দুটি গোল দেয়। গোল শোধ করতে না পারায় সফিউদ্দিনের ছাত্ররা উত্তেজিত হয়ে উঠে।

এসময় সাতাইশ স্কুলের এক খেলোয়াড়ের ফাউল হলে সফিউদ্দিন সরকারের খেলোয়াড়রা তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এসময় সফিউদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক মো. গোলাম মোস্তফা ও এম.এ ফয়সল ওরফে শফি মাস্টারের উস্কানিতে সাতাইশ স্কুলের খেলোয়াড়দের ওপর চড়াও হয়। এতে শফিউদ্দিনের ছাত্ররা গজাড়ির লাঠি, স্টীলের স্কেল ও চেয়ার দিয়ে এলোপাথারি পিটিয়ে দর্শকসহ কমপক্ষে ১৫জনকে আহত করে। খবর পেয়ে টঙ্গী মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি শান্ত করে। এ ব্যাপারে শফি মাস্টারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সময় খেলার মাঠে ছিলেন না বলে জানান।

Facebook Comments
শেয়ার করুন