মাদকদ্রব্য বিক্রির প্রতিবাদে কালিয়াকৈরে যুবকে কুপিয়ে জখম

0
21
Print Friendly, PDF & Email
img-single 12061Kaliakair Pic

মাদকদ্রব্য বিক্রির প্রতিবাদ করায় সোমবার ভোরে নিজ ঘরের ভিতরে ঢুকে মীর জাহিদুল ইসলাম (২৫) নামক এক যুবককে এলোপাথারি কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মেদীআশুলাই দেওয়ানপাড়া এলাকায়।

আহতের পরিবার, এলাকাবাসী ও অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার মেদীআশুলাই এলাকার সফিকুল ইসলাম ওরফে রসব আলীর ছেলে রাসেল মন্ডল দীর্ঘদিন যাবত উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রকাশ্যে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য ব্যবসা করে আসছিলেন।

এতে কিছু দিন আগে ওই এলাকার জাহিদুল ইসলাম মাদকদ্রব্য বিক্রি করতে নিষেধ করেন। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে সোমবার ভোরে মাদক ব্যবসায়ী রাসেল মন্ডলের নেতৃত্বে ৪-৫ জনের একদল সন্ত্রাসী জাহিদুলের বাড়ীতে হামলা চালায়। পরে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

এসময় তার ডাক-চিৎকারে আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে এসে মাদক ব্যবসায়ী রাসেলকে আটক করলেও বাকীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। পরে জাহিদুলকে গুরুতর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ আটক মাদক ব্যবসায়ী রাসেলকে উদ্ধার করে ছেড়ে দেন।

এ ব্যাপারে আহত জাহিদুল জানান, মাদক বিক্রি করতে বাধাঁ দেয়ায় ওরা আমাকে হত্যার করার চেষ্টা করে। কিন্তু এলাবাসী এগিয়ে এলে আমি বেঁচে যাই। এবার বেচেঁ গেলেও পরে আবার মেরে ফেলার চেষ্টা করবে। ওদের হাত থেকে আমি বাচঁতে চাই।

এব্যাপারে রাসেলের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে রাসেলের পিতা সফিকুল ইসলাম রসব আলী জানান, আমার ছেলে মাদক ব্যবসায়ী নয়। মেয়েলি কারণে এঘটনা ঘটেছে, স্থানীয় চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে ঘটনাটি মিমাংসা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে চাপাইর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান সেতু জানান, পুলিশের উপস্থিতিতে আটককৃত রাসেলকে সুষ্ঠ মিমাংসা করার শর্তে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মোশারফ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যানের জিম্মায় রাসেলকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় আহত জাহিদুল বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

Facebook Comments