গণতন্ত্র অব্যাহত রাখার চ্যালেঞ্জ নিয়েছে সরকার: রাষ্ট্রপতি

0
3
Print Friendly, PDF & Email
19-01-15-president parliame 112997 0

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, সাংবিধানিক প্রক্রিয়া সমুন্নত রেখে গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার চ্যালেঞ্জ নিয়ে বর্তমান সরকার দেশ পরিচালনা করছে। দেশের মাটি থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। দেশের মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা বিধান এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সরকার নিরন্তর কাজ করে চলছে। সোমবার জাতীয় সংসদে দেওয়া ভাষণে আবদুল হামিদ এ কথা বলেন।
 
নতুন বছরের প্রথম এবং দশম সংসদের পঞ্চম অধিবেশনের শুরুর দিনে দেওয়া এক ঘণ্টা ১৪ মিনিটব্যাপী এই ভাষণে রাষ্ট্রপতি সংসদকে সকল কর্মকাণ্ডের কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি এসময় সরকার ও বিরোধী দলসহ সকলকে জাতীয় সংসদে গঠনমূলক ও কার্যকর ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।
 
বিকাল সোয়া ৪টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদসহ সাংসদ-মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে অধিবেশণ কক্ষ ছিল কানায় কানায় পূর্ন।
 
সংসদে উত্থাপিত ৭৬ পৃষ্ঠার লিখিত বক্তব্যের সংক্ষিপ্তসার পড়েন রাষ্ট্রপতি। তবে পুরো বক্তব্যটি সংসদের কার্যপ্রবাহে পঠিত বলে গণ্য করার কথা জানান স্পিকার শিরীন শারমিন।
 
রাষ্ট্রপতি তার বক্তব্যে অর্থনীতি, বাণিজ্য, কৃষি, বিদ্যুত, বৈদেশিক সম্পর্ক, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারের কর্মকাণ্ড ও সাফল্য তুলে ধরেন। একই সঙ্গে সরকারের ভবিষ্যত উন্নয়ন পরিকল্পনার বিভিন্ন দিকও তুলে ধরেন তিনি।
 
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতা, আন্দোলনের নামে কতিপয় রাজনৈতিক দলের জ্বালাও-পোড়াও, ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, খুন-জখমসহ ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের মধ্যে বর্তমান সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করে। সরকারের দক্ষ পরিচালনায় বাংলাদেশ আজ সারাবিশ্বের উদীয়মান অর্থনীতির রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। অর্থনীতির সকল সূচকে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে। সামাজিক সূচকের অগ্রগতিতে প্রতিবেশী দেশ ভারতের তুলনায় বাংলাদেশ এগিয়ে গেছে। 
 
তিনি বলেন, গণতন্ত্রের বিকাশ, আইনের শাসন সুদৃঢ়করণ এবং সমাজিক শান্তি ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সরকার দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গণতন্ত্রের ধারাবাহিক চর্চা ও অনুশীলন জাতির বিভিন্নমুখী সমস্যার সমাধান দিতে সক্ষম বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
 
আবদুল হামিদ বলেন, বর্তমান সরকার একটি গণতান্ত্রিক কাঠামোর মধ্যে থেকে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণ, মানবাধিকার ও আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শণ, সমস্যা নিরসণে দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও বাস্তবায়ন এবং জাতির অগ্রযাত্রার স্বপ্ন ও আকাঙ্খখাকে বাস্তবে রূপ দিতে সর্বাত্মক উদ্যোগ নিয়েছে।
 
রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশের সংবিধান সমুন্নত এবং সংসদীয় গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রেখে ২০১৪ সালে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে দশম জাতীয় সংসদ গঠিত হয় এবং বর্তমান সরকারের ওপর দেশ পরিচালনার গুরু দায়িত্ব অর্পিত হয়।
 
রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করতে সরকার আন্তরিকতার পরিচয় দিয়েছে। ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত গৌরবোজ্জ্বল স্বাধীনতা সমুন্নত এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুজ্জ্বল রাখতে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন সুদৃঢ় করতে এবং শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে, বাঙালি জাতিকে আবারও ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি।

Facebook Comments