শ্রীপুরে মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা; আহত ১

7
Sreepur-24-04-2015

স্টাফ রিপোর্টার: শ্রীপুর উপজেলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দূবৃত্তরা। এ ঘটনায় মা ও বোন কে রক্ষা করতে গেলে ছেলেকে গুরুতর জখম করে। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার আতড়লা গ্রামে এই লৌমহর্ষক জোড়া খুনের এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার প্রহদলাদপুর ইউনিয়নের আতলড়া গ্রামের মৃত আমির উদ্দিনের স্ত্রী হাছিনা (৫০), তার পুত্র শাহজাহান (২৬) ও কন্যা আরিফা খাতুন (২২) কে নিয়ে বসবাস করত। আরিফা খাতুন স্থানীয় ধলাদিয়া ডিগ্রী কলেজের ডিগ্রী ১ম বর্ষে লেখাপড়া করত। আরিফা কলেজে আসা যাওয়ার পথে স্থানীয় কতিপয় বখাটে যুবক প্রায় সময়ই প্রেম নিবেদনসহ উত্যক্ত করত।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে দুবৃত্তরা হাছিনার ঘরে ঢুকে মা হাছিনার হাত পা বেঁধে আরিফার উপর পাশবিক নির্যাতনের চেষ্টা করে। আরিফা ডাকচিৎকার শুরু করলে দুবৃত্তরা হাছিনা ও তার মেয়ে আরিফাকে এলোপাতারি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় পুত্র শাহজাহান মা ও বোনকে রক্ষা করতে গেলে দুবৃত্তরা তাকেও এলোপাতারি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে তাদের ডাক-চিৎকারের শব্দ পেয়ে পার্শ্ববর্তী ঘর থেকে হাছুনির ছোট ছেলে মুজিবুর রহমান ও পড়শিরা এগিয়ে আসলে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসি তাদের উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আরিফা খাতুনকে মৃত ঘোষণা করে এবং মা-ছেলে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। ঢাকায় নেয়ার পথে হাসিনা বেগমও মারা যান।

খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদেকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন, শ্রীপুর মডেল থানার ওসি আব্দুল মোতালেব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। হত্যাকান্ডের পর পুরো এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। শ্রীপুর মডেল থানার ওসি আব্দুল মোতালেব জানান, হত্যাকান্ডের ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Facebook Comments