শ্রীপুরে পরক্রিয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় স্ত্রী নির্যাতনে শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

0
50
Print Friendly, PDF & Email
74747474

আকতার হোসেন, শ্রীপুর প্রতিনিধি: বিধবা মহিলার সংঙ্গে পরক্রিয়া প্রেমে বাধা স্ত্রী নির্যাতনে শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগে জানা গেছে, কাপাসিয়া উপজেলার বাঘিয়া গ্রামের ইব্রাহিমের মেয়ে মোছা: ফাতেমা বেগম শ্রীপুর উপজেলা গোসিংগা ইউনিয়নের পেলাইদ গ্রামের মৃতু শুক্কুর আলীর পুত্র শিক্ষক আ: বাতেনের সংঙ্গে বিবাহ হয়। বিবাহের পর কয়েকবার স্ত্রীর কাছ থেকে যৌতুকের টাকা নেন শিক্ষক। মৃত আ: মোতালেবের স্ত্রী ও শিক্ষকের ভাবী খাদিজা সংঙ্গে শিক্ষকের পরক্রিয়া প্রেম ও অসামাজিক কাজে জড়িয়ে পড়ে। তাদের অসামাজিক কর্মকান্ড স্ত্রী দেখে প্রতিবাদ করলে তার ওপরে অমানষিক নির্যাতন চালিলে শিক্ষক আ: বাতেন ও তার পরক্রিয়া প্রেমিকা মিলে তার স্ত্রীকে নির্যাতন করে বাড়ী থেকে নাবালক ছেলে সহ তাড়িয়ে দেয়। শিক্ষক বাতেন, তার প্রেমিকা বিধবা খাদিজা ও জুলেখা সহ বিভিন্ন সময় স্ত্রীর ও পর মানষিক নির্যাতন চালিয়ে ও যৌতুক দাবী করে। যৌতুকের টাকা না দেওয়া ও তার পরক্রিয়া প্রেমে বাধা দেয়ার কারণে স্ত্রীর ফাতেমার ওপরে একের পর এক নির্যাতন করিয়া তাহার মস্তেঙ্কে আঘাত করে এবং নাবালক শিশু সন্তানসহ বাপের বাড়ীতে অবস্থান নিয়ে কোনরকমে জীবন চালাচ্ছেন।

শিক্ষক আ: বাতেন স্ত্রীকে নির্যাতন করে বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দিয়ে উল্টো তার নামে লিগ্যাল নোটিশ করেন ও আদালতে বা থানায় মামলা করলে নাবালক ছেলে সন্তানসহ হত্যা করে লাশ গুম করার নিয়মিত হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বলে। ফাতেমা জানান। আহত ফাতেমা সাংবাদিকদের বলেন, বিধবা ভাবীর সাথে পরক্রিয়া ও অসামাজিক কার্যকলাপে বাধা দিলে আমার ওপর চালায় অমানষিক নির্যাতন। বর্তমান শিক্ষক আ: বাতেন ময়মনসিংহ জেলার গফরগাও উপজেলার গয়েশপুর কলেজে কর্মরত রয়েছেন।

Facebook Comments
শেয়ার করুন