কাপাসিয়ায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে এক যুবকের মৃত্যু

0
18
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপের্টাার :কাপাসিয়া উপজেলায় ডাকাত সন্দেহে একজনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার ভোরে কাপাসিয়া উপজেলার বরুন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত যুবকের নাম মোতালেব (৩২)। নিহত যুবক কাপাসিয়া উপজেলার চামুরকি এলাকার হাফিজ উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে কাপাসিয়া থানায় ডাকাতি ও চুরির একাধিক মামলা রয়েছে। দুটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। কাপাসিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান মো. আজগর হোসেন খান বলেন, রাত সাড়ে ৩টার দিকে বরুণ গ্রামের হাজী মালেকের বাড়িতে ৬/৭ জন ডাকাত হানা দেয়। এ সময় বাড়ির লোকজন জেগে উঠলে তারা সেখান থেকে সরে গিয়ে স্থানীয় একটি চায়ের দোকানের সামনে অবস্থান নেয়। কাছেই মাছের খামারে পাহারায় থাকা আনোয়ার হোসেন মুন্সী নামের এক ব্যক্তির সন্দেহ হলে তিনি কাছে গিয়ে তাদের পরিচয় জানতে চান। ওই ‘ডাকাতদলের’ সদস্যরা তখন তাকে ধাওয়া দিলে আনোয়ার ‘ডাকত ডাকাত’ বলে চিৎকার শুরু করেন। তার চিৎকারে গ্রামবাসী এগিয়ে আসে এবং ধাওয়া করে মোতালেবকে ধরে বেদম পিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। কাপাসিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আহসান উল্লাহ জানান, ঘটনাস্থল থেকে শাবল, তালা কাটার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। পরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ মগে পাঠায় বলে জানান ওসি।

Facebook Comments
শেয়ার করুন