টিউশন ফির ওপর ভ্যাট নিয়ে রুল জারি

8
image 254289.high cort

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজ এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফির ভ্যাট আরোপ করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি করে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি জে এন দেব চৌধুরীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। অর্থসচিব, শিক্ষাসচিব, এনবিআর সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যানকে তিন সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার হাসান এম এস আজিম।

এর আগে গত মঙ্গলবার আবেদনটি দায়ের করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষক খন্দকার দিদার-উস-সালাম, একই ইউনিভার্সিটির অরো দুই ছাত্র। রিট আবেদনে বলা হয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর করারোপ করা হলেও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর করারোপ করা হয়নি। এটা বৈষম্যমূলক।

পরে আদালত থেকে বেরিয়ে খন্দকার দিদার-উস-সালাম সাংবাদিকদের বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজ এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফির ওপর ৭ দশমিক ৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করে ৪ জুলাই এনবিআর প্রজ্ঞাপন জারি করে। এ প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করলে আদালত রুল জারি করেন।

এদিকে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে বেসরকারি শিক্ষার ওপর আরোপ করা সাড়ে সাত শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে অনেক দিন ধরেই আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা। নো ভ্যাট অন এডুকেশন ব্যানারে আন্দোলনরত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাষ্ট্রপতির কাছেও এ বিষয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দাবি, সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন না থাকায় আমরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে বাধ্য হচ্ছি। অথচ আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়, আমরা নাকি মেধাবী নই। সরকার আমাদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে পারে না। উল্টো আমাদের শিক্ষার ওপর ভ্যাট আরোপ করে শিক্ষার মূল্য বাড়াচ্ছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

Facebook Comments