সৌদি-মার্কিন দ্বন্দ্ব চরমে, বিনিয়োগ তুলে নেয়ার হুমকি সৌদির

12
মরকন পরসডনট বরক ওবম ও সদ বদশহ সলমন

সৌদি আরব যুক্তরাষ্ট্র থেকে তার বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে দেয়ার হুমকি দিয়েছে।

২০০১ সালের ৯/১১ হামলায় অভিযুক্ত বিদেশি দেশ ও সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্তদের মামলা রুজু করার অনুমোদন বিল মার্কিন কংগ্রেসে পাস হলে সৌদি আরব যুক্তরাষ্ট্রে বিনিয়োগকৃত ৭৫০ বিলিয়ন ডলার বা ৬০ লক্ষ কোটি টাকার ট্রেজারি সিকিউরিটিস বিক্রি করে ‘প্রতিশোধ’ নেয়ার হুমকি দিয়েছে।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-যুবায়ের গত মাসে ওয়াশিংটন সফরের সময় মার্কিন আইনপ্রণেতাদের এ হুমকি প্রদান করেন।

সৌদি সরকারের সাথে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ব্যাপারে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই বিলটি পাস হলে সৌদির সাথে কয়েক বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা-বাণিজ্য ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তাই ওবামা প্রশাসন এই বিলটি ব্লক করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

ওবামা প্রশাসন মার্কিন কংগ্রেসকে বিলটি পাস না করার জন্য ব্যাপক চাপ প্রয়োগ করছে। স্টেট ডিপার্টমেন্টের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও পেণ্টাগণ সিনেটের আর্মড সার্ভিস কমিটিকে গতমাসে সতর্ক করে দিয়ে জানিয়েছে, বিলটি মার্কিন অর্থনীতির ক্ষতির কারণ হতে পারে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করেও সৌদি কর্তৃপক্ষের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

৯/১১ হামলায় অভিযুক্ত বিদেশি দেশ ও সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্থদের মামলা করার অনুমোদন বিলটি সিনেটর চাক স্কুমার ও জন করনিন প্রথম উত্থাপন করেন। বিলটি পাস হলে হামলায় ক্ষতিগ্রস্থরা অভিযুক্ত দেশ ও সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ আদায়ে মামলা করার অধিকার লাভ করবে।

মধ্যপ্রাচ্যে আমেরিকার গুরুত্বপূর্ণ ও দীর্ঘদিনের মিত্র সৌদি আরব ৯/১১ হামলার সাথে জড়িত থাকার কথা কখনো স্বীকার করেনি। কিন্তু ওই হামলায় জড়িত ১৯ জন বিমান ছিনতাইকারীর ১৫ জনই সৌদি নাগরিক।

এছাড়া গত ফেব্রুয়ারিতে আটক জাকারিয়া মুসাওয়ি নামের কথিত ২০ তম ছিনতাইকারী ৯/১১ হামলায় আল-কায়েদার জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

সূত্র: সিএনএন

Facebook Comments