বিশ্বের প্রথম ‘ফ্লাইং ট্যাক্সি’র যাত্রা শুরু

0
35
Print Friendly, PDF & Email

সফলভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হলো বিশ্বের প্রথম ড্রোন ট্যাক্সির৷ এটিই হতে যাচ্ছে বিশ্বের প্রথম উড়ন্ত ট্যাক্সি৷ এই ফ্লাইং ট্যাক্সিতে রয়েছে দুটি সিট, রয়েছে ১৮টি প্রপেলার৷ দুবাইয়ের যুবরাজ শেখ হামদান বিন মোহাম্মদের জন্য সোমবার এর একটি পরীক্ষামূলক উড়ানের ব্যবস্থা করা হয়৷

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দুবাইয়ের যুবরাজ সেই উড়ন্ত ট্যাক্সির মধ্যে বসে রয়েছেন৷ মনে করা হচ্ছে, স্মার্ট যুগে আপনি আপনার স্মার্ট ফোন থেকে এই উড়ন্ত গাড়িকে ডেকে তাতে চেপে আপনার গন্তব্যে পৌঁছতে পারবেন৷ এতে জিপিএস ট্র্যাকিং-এর সুবিধাও রয়েছে৷ আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে পুরোদস্তুর এই ট্যাক্সি বাজারে আনার চেষ্টা করা হবে বলেও জানা যাচ্ছে৷

সোমবারের পরীক্ষাতে এই যানটি ৫ মিনিটের জন্য ২০০ মিটার উপরে ওড়ে বলে জানা গেছে৷ এর মধ্যেই বসেছিলেন দুবাইয়ের যুবরাজ৷ তার মতে, নতুন কিছু উদ্ভাবন করার প্রচেষ্টা এবং উন্নতমানের প্রযুক্তিকে গ্রহণ করাকে উৎসাহ দিলে তা শুধু দেশের উন্নতিই করে না, তার পাশাপাশি ভবিষ্যতের সঙ্গেও একটা সুন্দর সম্পর্ক তৈরি করে৷

তবে এর আগেও উড়ন্ত গাড়ির কথা শোনা গিয়েছিল৷ সৌজন্যে এরো মোবিল। তারাই তৈরি করে অত্যাধুনিক উড়ন্ত গাড়ি। নাম এরোমোবিল থ্রি পয়েন্ট জিরো। গাড়িতে রয়েছে হাই-টেক ককপিট এবং ভাঁজ করা যায় এমন ডানা। ফলে পার্কিংয়েরও কোনো সমস্যা নেই।

এরোমোবিল এমনভাবে তৈরি যাতে আকাশ এবং মাটি… সমান গতিতে সে ছুটতে পারবে। আর সব থেকে বড় কথা হলো টেক-অফ এবং ল্যান্ডিংয়ের জন্যও তার খুব বেশি জায়গাও লাগবে না। বাড়ির পাশে মাত্র পঞ্চাশ মিটার ঘাসজমি থাকলেই যথেষ্ট। মাটি থেকে ডানা মেলে আকাশে পাড়ি দেবে উড়ন্ত গাড়ি।

উৎপাদনকারী সংস্থার দাবি, যেসব দেশে পরিবহণ ব্যবস্থা খুব ভালো নয়, সেসব দেশের জন্য যথেষ্ট কার্যকরী হবে এরোমোবিল। তবে আর অপেক্ষা কেন? হাতে কড়ি আর বাড়ির পাশে জমি…এই দুটি থাকলে আপনিও একটি এরোমোবিলের মালিক হতে পারেন।

Facebook Comments
শেয়ার করুন