শ্রীপুরে বকেয়া বেতনের দাবীতে কারখানায় তালা মালিকপক্ষ অবরুদ্ধ

0
25
Print Friendly, PDF & Email

গাজীপুরের শ্রীপুরের মুলাইদ গ্রামে বকেয়া বেতনের দাবীতে ইউনিয়ন ইন্ডাষ্ট্রিয়াল কমপ্লেক্স নামক কারখানার মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করেছে কর্মরত শ্রমিকেরা।
বুধবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে এ বিক্ষোভের ঘটনা ঘটে। এ সময় কর্মরত শ্রমিকেরা কারখানার মূল ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে বকেয়া বেতনের দাবীতে বিক্ষোভ করলে শিল্প পুলিশ এসে মূল ফটক থেকে শ্রমিকদের সরিয়ে দেয়।
কারখানার শ্রমিকদের ভাষ্যমতে, গত তিনমাস যাবৎ উক্ত কারখানা কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের পূর্নাঙ্গ বেতন ভাতা প্রদান করছেন না,এমন অবস্থায় গত আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে শ্রমিকেরা দুইবার বিক্ষোভ করলে তাদের আংশিক বেতন দেয়া হয়। সর্বশেষ সকল পাওনা বেতন ভাতা পরিশোধের জন্য অক্টোবর মাসের দশ তারিখ সময় নির্ধারণ করলেও তাঁরা তাদের কথা না রেখে প্রতিদিনই তারিখ পরিবর্তন করতে থাকেন,পরে বুধবার সকালে সকল শ্রমিক একতাবদ্ধ হয়ে কারখানার মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয়। তাদের দাবী বকেয়া বেতন না দিলে কারখানার সামনে থেকে তাঁরা যাবেন না।
কারখানার কোয়ালিটি কন্টোলার শাহাদাৎ হোসেন বলেন, এ কারখানা গত ছয়মাস যাবৎ অনিয়মিত ভাবে শ্রমিকদের বেতন ভাতা দিচ্ছে, সর্বশেষ অনেকের দুই মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। বেতন বকেয়া থাকার কারণে বাসা ভাড়া দিতে পারছি না দোকান বাকীও পরিশোধ করতে পারছি না।
সুইং অপারেটর আসমা আক্তার বলেন, প্রতিবারই আমাদের বকেয়া বেতনের জন্য আন্দোলনে নামতে হয়। এভাবে বেতন বকেয়া থাকলে আমরা কিভাবে চলব। আমরা এখন চাকুরীও ছাড়তে পারছি না আবার সংসারও চালাতে পারছি না।
কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তা বজলুর রশিদ বলেন, কারখানার মালিক বর্তমানে আর্থিক সমস্যায় থাকায় বেতন বকেয়া পরেছে। আর এ দিকে শ্রমিকেরা সকাল থেকেই কারখানার মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয়ায় আমরা অবরুদ্ধ হয়ে রয়েছি, আলোচনার সুযোগ পেলে দুইমাসের বকেয়া বেতন পরিশোধের ব্যবস্থা নেয়া হবে।
গাজীপুর শিল্প পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এ এস আই)ফজলুল হক বলেন, শ্রমিকেরা কারখানার মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ প্রদর্শন করলে তাদের মূল ফটক থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধে মালিক পক্ষের সাথে সমাধানের চেষ্ঠা চলছে। প্রতিষ্ঠানে কোন ধরনের ভাংচুর হয়নি।

Facebook Comments
শেয়ার করুন