বর্ষ ১ - সংখ্যা ৪৯

সংবাদ শিরোনাম :
নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ হতে হবেঃ অধ্যাপক ডা. এসএম রফিকুল ইসলাম বাচ্চু: শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করন সময়ের দাবী: সিলেটে ত্রান না পাওয়ার অভিযোগ করায় অভিযোগকারিকে আওয়ামীলীগ নেতার মারধর: ইউএনও’র বিরুদ্ধে মামলা প্রভাবশালীদের ইন্ধনে!: আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস আজ: গাজীপুর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা: কালীগঞ্জে অসহায় গ্রামবাসীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ওষুধ প্রদান: বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক ঘুরে দেখলেন সজিব ওয়াজেদ জয়: বিএনপির সদস্য হতে নারী ও তরুণদের ব্যাপক আগ্রহ: ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ নিয়ে সমালোচনায় ট্রাম্প: ইরানের পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়ন করুন : চীন: মার্চেই প্রাথমিকে ১৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগ : গাজীপুরে অস্ত্র ও গুলিসহ ৬ ডাকাত আটক: গাজীপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আ.লীগ প্যানেল জয়ী: গাজীপুরের শ্রীপুরে সড়কে গর্ত ও ধুলায় জনদুর্ভোগ চরমে:
A+ A A-

টাটার চেয়ারম্যান বদলের ধাক্কা শেয়ারবাজারে

টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইরাস মিস্ত্রিকে অপসারণের ধাক্কা লেগেছে কম্পানির শেয়ারে। আর তার প্রভাব পড়েছে বোম্বে শেয়ারবাজারেও। গতকাল মঙ্গলবার টাটা গ্রুপের প্রায় সব কম্পানির শেয়ার ৪ শতাংশ পর্যন্ত পড়েছে। শেয়ারের দাম পড়েছে টিসিএস, টাটা স্টিল, টাটা মোটরস ও টাটা পাওয়ারের। সেই সঙ্গে বিএসই সেনসেক্স সূচক পড়েছে ১৩৩ পয়েন্ট। নিফটি সূচক পড়েছে ৩৩ পয়েন্ট। গত সোমবার মুম্বাইয়ে বোর্ড মিটিংয়ে কম্পানির পরিচালকদের অনাস্থা ভোটের মাধ্যমে টাটা সন্সের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় সাইরাস মিস্ত্রিকে। ২০১২ সালের ডিসেম্বরে ৬০ হাজার কোটি টাকার টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নিয়েছিলেন সাইরাস মিস্ত্রি। কিন্তু এক-দুই বছর কাটতে না কাটতেই শুরু হয় অভ্যন্তরীণ মতভেদ। বিশেষ করে রতন টাটার সঙ্গে সাইরাসের মতবিরোধ স্পষ্ট হয়ে ওঠে। তার সঙ্গে যোগ হয় টাটা গ্রুপের বিভিন্ন কম্পানির খারাপ পারফরম্যান্স। জানা যায়, সাইরাস মিস্ত্রির বিভিন্ন সিদ্ধান্তে অখুশি ছিল শেয়ারহোল্ডাররাও। চার বছরে শেয়ারহোল্ডারদের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করতে পারেননি সাইরাস মিস্ত্রি। গত আর্থিক বছরে টাটা গ্রুপের অনেক কম্পানিরই ব্যবসা কমে। মুনাফা কমেছে ইন্ডিয়ান হোটেলস, টাটা কেমিক্যালস, টাটা পাওয়ার, টাটা মোটরস ও টাটা স্টিলের। এদিকে গতকাল সকাল থেকেই গুজব ছিল টাটা সন্সের অপসারিত চেয়ারম্যান সাইরাস মিস্ত্রি তাঁর অপসারণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আবেদন করেছেন জাতীয় কম্পানি আইন ট্রাইব্যুনালে। আর এতে বিবাদী করা হয়েছে বর্তমান অন্তর্বর্তী চেয়ারম্যান রতন টাটা এবং দরাবজী টাটা ট্রাস্টকে। গতকাল মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায় ভারতের স্থানীয় নিউজ চ্যানেল সিএনবিসি টিভি-১৮। যদিও সাইরাস মিস্ত্রি কোনো অভিযোগ দায়েরের কথা অস্বীকার করেছেন। সাইরাস মিস্ত্রির অফিস থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, তিনি তাঁর অপসারণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে কোনো আবেদন করেননি। বরং তাঁর সম্পর্কে ভুল তথ্য দেওয়া হচ্ছে। গত সোমবার সাইরাস মিস্ত্রির অপসারণের পর টাটা সন্সের অন্তর্বর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন রতন টাটা। দায়িত্ব গ্রহণের পর গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘কম্পানির বিভিন্ন পর্যায়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত যাঁরা রয়েছেন নতুন পরিবর্তনে তাঁদের চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই, বরং আগের মতো সবাই নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করে যান। কম্পানির প্রয়োজনে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া দরকার সেটাই আমরা গ্রহণ করব এবং আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করেই সব ঠিক হবে।