বর্ষ ১ - সংখ্যা ৪৯

সংবাদ শিরোনাম :
কালীগঞ্জে অসহায় গ্রামবাসীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ওষুধ প্রদান: বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক ঘুরে দেখলেন সজিব ওয়াজেদ জয়: বিএনপির সদস্য হতে নারী ও তরুণদের ব্যাপক আগ্রহ: ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ নিয়ে সমালোচনায় ট্রাম্প: ইরানের পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়ন করুন : চীন: মার্চেই প্রাথমিকে ১৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগ : গাজীপুরে অস্ত্র ও গুলিসহ ৬ ডাকাত আটক: গাজীপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আ.লীগ প্যানেল জয়ী: গাজীপুরের শ্রীপুরে সড়কে গর্ত ও ধুলায় জনদুর্ভোগ চরমে: গাজীপুরের ‘জাগ্রত চৌরঙ্গী’ এখন মূত্রত্যাগীদের পাবলিক টয়লেট !!: কালিয়াকৈরে কবরস্থানের জমিতে মার্কেট নির্মাণের অভিযোগ !: উপমহাদেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী ড. মেঘনাদ সাহার স্মরণ সভা পালিত : শ্রী শ্রী মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠান ও অষ্টকালীন লীলা কীর্তন অনুষ্ঠিত: মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রপ্তানির দ্বার উন্মোচন: পুলিশি হামলা : দুঃশাসনের বহিঃপ্রকাশ : বিএনপি:
A+ A A-

‘মডেল স্ট্রিট’ হচ্ছে ধানমণ্ডি-২৭ থেকে সাইন্সল্যাব

Dhanmondi 727317919সড়কের পাশে ঝুলে থাকা বিদ্যুৎ, ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট টিভি ক্যাবলসহ অন্যান্য সেবাখাতের ক্যাবল নেওয়া হবে মাটির নিচে। সড়কে গাড়ি চলবে ডিজিটাল সিগন্যাল মেনে। একটি আধুনিক শহরের মতো সংক্রিয়ভাবে রাতে জ্বলবে সড়কবাতি।

সড়কের পাশের ফুটপাতে থাকবে না কোনো অবৈধ দোকানপাট। ড্রেনেজ ব্যবস্থাকে করা হবে আরও উন্নত। আধুনিক শহরের মতো করা হবে সড়কের সৌন্দর্যবর্ধন।
 
ধুলা-ময়লা, আবর্জনা এবং যানজটমুক্ত একটি আধুনিক শহরের রাস্তায় মতো করা হচ্ছে রাজধানীর ধানমণ্ডি-২৭ থেকে সাইন্সল্যাব পর্যন্ত সড়কটি। ক্রমান্বয়ে রাজধানীর অন্যান্য সড়কগুলোকেও একইভাবে আধুনিক করার পরিকল্পনা রয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি)।
 
গত ২৯ জুলাই ডিএসসিসি নগর ভবনে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউট, ঢাকা ওয়াসা ও ডিএসসিসি সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ইতিমধ্যে এ সড়কের সার্ভের কাজও করা হচ্ছে।
 
ডিএসসিসি’র উদ্যোগে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে দেশের খ্যাতনামা ও তরুণ স্থপতিদের কাছ থেকে সড়কটির প্রস্তাবনা ডিজাইন চাওয়া হবে। এরপরই এক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে একটি প্রস্তাবনা গ্রহণ করে মডেল স্ট্রিটের কাজ শুরু হবে বলে ডিএসসিসি সূত্রে জানা গেছে।
 
এ বিষয়ে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট স্থপতি ড. আবু সাঈদ এম আহমেদ বলেন, স্থপতিদের মাধ্যমে আইডিয়াল বা মডেল স্ট্রিটের প্রস্তাবনা তৈরির আগে এখন যে বিষয়টি দরকার তা হলো- সড়কের বর্তমান অবস্থা কী, সেখানে কতোটুকু জায়গা রয়েছে, দু’পাশে কতো তলা ও কতোটি ভবন রয়েছে, কী পরিমাণ দোকানপাট আছে, তা সার্ভের মাধ্যমে বের করা। গত দুই মাস ধরে এই কাজ করা হচ্ছে, তা এখন শেষের দিকে।
 
তিনি বলেন, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসেফিক ও নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের দিয়ে সার্ভের কাজটি করানো হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা এ সড়কের সব ধরনের তথ্য নিয়ে একটি মডেল তৈরি করছেন।
 
এটি তৈরি করতে আরও দুই সপ্তাহ সময় লাগবে জানিয়ে এই স্থপতি বলেন, মডেলটি তৈরি হয়ে গেলে তা দেখে দেশের খ্যাতনামা ও তরুণ স্থপতির কাছ থেকে আমরা একটি প্রস্তাবনা চাইবো। এরপর সবার কাছ থেকে পাওয়া বিভিন্ন প্রস্তাবনা থেকে প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সবচেয়ে ভালো প্রস্তাবটি গ্রহণ করে সরকারের কাছে পেশ করা হবে। এরপরই ‘মডেল স্ট্রিট’র মূল কাজ শুরু হবে।
 
এর আগে গত ২৯ জুলাই নগর ভবনে সিটি করপোরেশন, ঢাকা ওয়াসা ও বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউট কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে এক বৈঠকে রাজধানীর মিরপুর রোডকে ‘মডেল স্ট্রিট’ করার সিদ্ধান্ত হয়।
 
ওই দিন ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকন বলেছিলেন, ঢাকাকে পরিচ্ছন্ন, গ্রিন সিটি করা ও নগরীর সৌন্দর্যবর্ধন আমাদের লক্ষ্য। আমরা ঢাকার রাস্তাকে মডেল রাস্তা করতে চাই।  বিশ্বের বিভিন্ন আধুনিক শহরের রাস্তার মতো প্রথমে মিরপুর রোডকে ‘মডেল স্ট্রিট’ করতে চাই। এ সড়কের আদলে পরবর্তিতে রাজধানীর অন্য সড়কগুলোকেও আধুনিক করা হবে।