বর্ষ ১ - সংখ্যা ৪৯

সংবাদ শিরোনাম :
গফরগাঁওয়ে বিএনপি নেতা-কর্মীদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ ::. গফরগাঁওয়ে বিএনপি নেতা-কর্মীদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ ::. মার্চেই প্রাথমিকে ১৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগ ::. গাজীপুরে অস্ত্র ও গুলিসহ ৬ ডাকাত আটক ::. গাজীপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আ.লীগ প্যানেল জয়ী ::. গাজীপুরের শ্রীপুরে সড়কে গর্ত ও ধুলায় জনদুর্ভোগ চরমে ::. গাজীপুরের ‘জাগ্রত চৌরঙ্গী’ এখন মূত্রত্যাগীদের পাবলিক টয়লেট !! ::. কালিয়াকৈরে কবরস্থানের জমিতে মার্কেট নির্মাণের অভিযোগ ! ::. উপমহাদেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী ড. মেঘনাদ সাহার স্মরণ সভা পালিত ::. শ্রী শ্রী মহানাম যজ্ঞানুষ্ঠান ও অষ্টকালীন লীলা কীর্তন অনুষ্ঠিত ::. মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রপ্তানির দ্বার উন্মোচন ::. পুলিশি হামলা : দুঃশাসনের বহিঃপ্রকাশ : বিএনপি ::. বুড়িগঙ্গার সীমানা নির্ধারণ ও দখলদার উচ্ছেদের দাবি ::. রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরার অধিকার রয়েছে ::. সার্বভৌম সম্পদ তহবিল গঠন করতে যাচ্ছে সরকার ::.
A+ A A-

সার্বভৌম সম্পদ তহবিল গঠন করতে যাচ্ছে সরকার

নিউজ ডেস্ক : দেশে সভরেন ওয়েলথ ফান্ড (এসডব্লিউএফ) বা সার্বভৌম সম্পদ তহবিল গঠন করতে যাচ্ছে সরকার। প্রাথমিকভাবে ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দিয়ে শুরু হবে এই তহবিল। এই তহবিলের অনুমোদিত মূলধন হচ্ছে ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে তহবিল গঠনের অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বিদেশি ঋণ সুবিধাসহ জনস্বার্থে বহুমুখী ব্যবহারে হবে এই তহবিল। আজকের মন্ত্রিসভায় তহবিল গঠনের প্রাথমিক প্রস্তাব অনুমোদন হয়েছে। এরপর আইন তৈরি হবে, তারপর হবে অবকাঠামোসহ এর লক্ষ্য-উদ্দেশ্য।

রিজার্ভের টাকায় এ তহবিল গঠন করা হচ্ছে জানিয়ে মো. শফিউল আলম বলেন, আমাদের রিজার্ভ যদি ৩০ থেকে ৩২ বিলিয়ন ডলার হয় সেখান থেকে আমরা যদি ২ বিলিয়ন ডলার দিয়ে তহবিল শুরু করি তাহলে রিজার্ভে খুব বেশি প্রভাব পড়বে না। তা ছাড়া আমাদের অর্থনীতিতেও কোনো ধরনের বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেবে না। এভাবে বছরে ২ বিলিয়ন ডলার করে ৫ বছরে ১০ বিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করা হবে।

তিনি বলেন, বিদেশি রিজার্ভ কাজে লাগানোর চিন্তা থেকে এ তহবিল করা হচ্ছে। পৃথিবীর অনেক দেশেই এ ধরনের তহবিল আছে। এটা আমাদের প্রয়োজন হয়। যখন আমরা বিদেশিদের সঙ্গে ম্যাচিং ফান্ড করি, তখন তো আমাদের ডলার দিতে হয়। যেমন ধরুন, জেডিসিএফ (জাপানি ঋণ মওকুফ সহায়তা তহবিল), ইসিএফ (আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের বর্ধিত ঋণ সহায়তা) বা কোনো বিদেশি ব্যাংক আমাদের লোন দিল, বলা হলো ওটার সঙ্গে সরকার সমপরিমাণ ডলার দেবে। তখন এটার সাপোর্ট দেওয়ার জন্য আমাদের কোনো ব্যবস্থা থাকে না। এখন যদি এই তহবিলটা গঠন করা হয়, তাহলে সেই সুবিধা আমরা পাব।

তহবিলের বহুমুখী ব্যবহার হতে পারে জানিয়ে শফিউল আলম বলেন, সরকার জনস্বার্থে যেকোনো বিনিয়োগে এই তহবিল থেকে অর্থ ব্যবহার করতে পারবে। এটা থেকে অবকাঠামো নির্মাণও করা যাবে। সব ইমার্জেন্সিও পূরণ করা যাবে।